প্রবন্ধ- মানবতার অবক্ষয়

চন্দ্রাবলী ব্যানার্জীঃ মানবতার অববাহিকাতে আজ মানবতার নৈরাজ্যের প্রতিস্থাপন চলছে ।সমাজের উচ্চ থেকে নিম্ন অথবা নিম্ন থেকে উচ্চ একই চিত্ররূপ । আমাদের এই প্রগতিশীল তথা আধুনিক সমাজ একটু একটু করে ছেড়ে দিয়েছে মানবতার প্রসারিত হাত । তার বন্ধ মুষ্টিতে এখন অমানবিকতার চাবিকাঠি । সেই চাবিকাঠি দিয়ে সে জয় করবে পৃথিবীর সমস্তরকম সুখ-বিলাস- বৈভব । একমাত্র লক্ষ্য
Complete Reading

অনুগল্পঃ-দ্বন্দ্ব

দীপক আঢ্যঃ মুখ ভার করে বসে আছে ব্রতীন। ব্রতীন বন্দ্যোপাধ্যায়। মফঃস্বল কলেজের সমাজ বিদ্যার অধ্যাপক। সামনের সপ্তাহে জামাই ষষ্ঠী। শ্বশুর বাড়ি থেকে ইতি মধ্যে বার কয়েক ফোন এসেছে নিমন্ত্রনের বার্তা নিয়ে।গত সপ্তাহে শ্বশুর মশায়ও হঠাৎ এসে একবার বলেও গেছেন। হ্যাঁ, না কিছু বলেনি ব্রতীন। সৌমী কে অনেক বার বলেছে, ‘একাই যাও না , মেয়েটাকে নিয়ে।
Complete Reading

অনুগল্প- রাইট চয়েস

রাজকুমার ঘোষ- বিশেষ মানুষটি কেমন জানা নেই, কলেজে ঢুকেই অন্যরকম বিশেষ কেউ খোঁজার তাগিদটা অনুভব করলাম। সৌভাগ্যবশতঃ কজন বান্ধবীও হল, পিঙ্কিকে দেখার পর বেশ অন্যরকম খুঁজে পেলাম… তার আগে রিমার সাথে কেমিস্ট্রিটা জমে উঠেছিল । সেক্ষেত্রে রিমার তাগিদটাই বেশি। ও আমার খুব ভালো বান্ধবী । ঝগড়া লেগেই থাকত, কোন একদিন ঝগড়ার পর ক্ষমা চাওয়াতেই জড়িয়ে
Complete Reading

কবিতা – ইতি ভ্যালেন্টাইন

গৌতম চট্টোপাধ্যায়ঃ আজ সযত্নে লিখে রেখো খাম, ঠিক তোমার চেনা হস্তাক্ষরে, সুচারু দীর্ঘ কলমের ডগায়, ফুল ফুটুক তবে অশ্বথ্যমার হাতে। এ আসক্তি যে বড়, যা অচেতন করে তোলে বিচারের ঢাল, মায়ারূপি রঙিন ছবি তটে, ঢেউ মুছে দেয় খোদাই বালুকাবেলা। কাল যখন আমার ঘুম ভাঙাবে, ঠিক যেমন প্রত্যেকদিন করো, ফোনের ওপাশে তোমার নিস্তব্ধতা, চুম্বক প্রেমে শুষে
Complete Reading

কবিতা- জলনুপুর

অনুপ বৈরাগী: গতরাতে তোমাকে স্বপ্নে দেখলাম তোমার প্রিয় মূর্তি নদীতে গোড়ালি ডুবিয়ে দাঁড়িয়ে আছো নরম রোদের হাসি তোমার মুখে ফোকাল লেনথ অ্যাডজাস্ট করছে পাহাড়ের চোখ ক্লিক ক্লিক : শাটার পড়লো কয়েকবার তুমি আবার হাসলে এতক্ষণ ব্রীজের ওপর থেকে দেখছিলাম তারপর পানকৌড়ির মতো ঝাঁপ দিলাম পালক: ডানা:গোটা শরীর আমার জলনুপুর হয়ে গেলো আমি ছুঁয়ে যাচ্ছি তোমার
Complete Reading

ভ্যালেনটাইন ডে

আর্যতীর্থ: এই বারুদের দিনে তোমায় দেবোনা কোনো রক্তগোলাপ, লাল বড় সহজলভ্য রঙ, খবরের কাগজের পাতায় পাতায়, তোমায় নেবো না কোনো মোমবাতি আলোকিত রাতরেঁস্তোরায়, মোমবাতি জেনে গেছে পৃথিবীর অগণিত পাপ। দুজনে একলা হলে ছাতে নিয়ে গিয়ে, তোমাকে চেনাতাম লুব্ধক, দেখাতাম অরুন্ধতী সপ্তর্ষিমণ্ডলের কত কাছাকাছি থাকে, এক আকাশ ভরা তারা বলো আর কিভাবে দিই তোমাকে, পাঁচ কোটি
Complete Reading

অনুগল্প- বিজয়া প্রণাম

শ্যামাপদ মালাকার: গ্রামের দিকে বিজয়ার বিকেলই বেশীর ভাগ পরব লাগে। তাই,– মা’ ঐ রুম হতে হাক দিয়ে আমায় বলল,-“খোকা তুই মণ্ডপে যাবি না?” –আমিও মায়ের প্রশ্নানুসারে উত্তর দিয়ে বসলাম,-আজ-কাল দুগ্গা দেখতে মণ্ডপে যেতে হয় না মা’-পথের ধারে দাঁড়ালে অনেক দুগ্গা দেখতে পাই, –তারমধ্যে পুরানোও দু’একটি পাই,-আমার কথা শেষ হতে না হতেই,-মা’ রেগে বলে উঠল,–“এতো ইয়ারকি
Complete Reading

কবিতা – কান্নার রঙ

সন্দীপ ভট্টাচার্য্য, মুম্বাই অন্ধকূপ তামস নিরাপত্তা রূপকথার মতোই আবছা কিছু বাস্তবতা আর বাকিটা ব্যক্তিগত ভোরের আজান মোমবাতি ঘন্টা রাই জাগো গো কে জাগে কার জাগরণ অযত্নে মরে বিবেক সর্বহারা অতঃপর অদিব্য রক্তপাত কান্নার রঙ এক ঊণ্মূল উদ্বাস্তু ।

কবিতা – আমার কল্পনায় বইমেলা

পায়েল খাঁড়া সুড়কি ফেলা পথ….পায়ে পায়ে আত্মীয় দুপাশে বই দোকানের সার শৈত‍্য সন্ধ‍্যে হয়ে উঠেছে রাজকীয়। মলাটের ভাঁজে কাহিনীর ভীড় কেউ ছন্দ আয়েসী…… তো কেউ ঢলেছে অমিত্রাক্ষর ছাঁদে কেউ পুরাতন, কেউ সদ‍্য প্রকাশিত….আনকোরা ছাপাখানার উত্তাপ এখনো প্রচ্ছদে লেগে আছে। উঁকি দিও ইতিউতি…… রসাস্বাদন ও রসনাপূর্তি দুয়েরই জোটক সংগতি। বাজেটে কম বেশি হবে তহবিলে ঢ‍্যারা কেটে
Complete Reading

কবিতাঃ বসন্তে আজো

সুনন্দ মন্ডল কাঠিয়া,মুরারই,বীরভূম শীত পেরিয়ে বসন্তের পাখি রোদে পিঠের পালক গুলি পুড়ে। ভালোবাসার গান গাইতে তারা সুদূর থেকে আসল ছুটে ঘরে। কূজনে তারা ভাসিয়ে দিল শীত আনল বয়ে বসন্তের মুখ। হলুদ খামে উড়ল চিঠি দূরে নতুন কিছু উঠোন জুড়ে সুখ। গাছের শাখা ভরলো ফুলে ফুলে গুনগুনিয়ে ভ্রমর এলো ডালে। তোমার খোলা চুলের ধারা পিঠে লিপস্টিকের
Complete Reading

ভ্যালেনটাইন ব্রতকথা

আর্যতীর্থ: কোন ডে যে চকোলেট কোন ডে যে টেডি। আরচিস কার্ড নিয়ে রোজ থেকো রেডি।। ট্যাঁকে যদি থাকে টাকা প্রেম টেম হবে। নাচো বাছা ধেই ধেই প্রেম উৎসবে।। ফেলো কড়ি মাখো তেল এ যুগের রীতি। জাপানের তেল জেনো বিখ্যাত অতি।। প্রেম যদি ঝাড় খেয়ে হয়ে যায় খাটো। এই তেল প্রেমে দিয়ে তেড়েফুঁড়ে ওঠো।। প্রেম খাও
Complete Reading

ভুখামন

আর্যতীর্থ: ভুখা মানুষ, বই ধরো , ওটা হাতিয়ার! কবে যে কে দিয়েছিলো স্বর্নালী ডাক, পরে নেতা বুঝেছেন আসল ব্যাপার কথা আর কাজে তাই প্রবল ফারাক। শব্দেরা অক্ষরে উঠে আসে যদি, যুক্তি বুদ্ধি তবে খাঁচা ভেঙে ওড়ে, ভাবনারা হয়ে যায় প্রথা ভাঙা নদী, ভোটভিখারির তাতে বড় ভয় করে। বই মানে খুলে দেওয়া মনের দরজা বই মানে
Complete Reading

Create Account



Log In Your Account



Translate »
  • স্বাগত ২০১৮, সকলকে রোজদিন জানায় ইংরেজী নববর্ষের শুভকামনা। সুস্থ থাকুন, ভালো থাকুন সকলে। আর থাকুন রোজদিনের সঙ্গে।
  • দেখতে থাকুন রোজদিন। আপনার দিন। আমার দিন।
  • ২৪ ঘন্টার সাংবাদিক অঞ্জন রায় আক্রান্ত বলে অভিযোগ
  • আগামীকাল বেলা ১২টা থেকে বিকাল ৪টে পর্যন্ত টেকনিক্যাল কারণে রোজদিন বন্ধ থাকবে।
  • আশা রাখি রোজদিনের সকল পাঠকগণ আমাদের সাথে থাকবেন।
toggle